মাজারের খাদেম থেকে কমিটি প্রধান, সবাই হিন্দু!

মাজারের খাদেম থেকে কমিটি প্রধান, সবাই হিন্দু!

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় যে দেশে ধর্মীয় স্থাপনার সামনে পুলিশ মোতায়েন রাখতে হয়, সেখানেই একটি মাজারের খাদেম থেকে পরিচালনা কমিটি প্রধান, সবাই হিন্দু ! দীর্ঘ ৩২ বছরের বেশি সময় ধরে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির এক অনন্য নজির গড়ে চলেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিম মেদেনীপুর জেলার একটি মাজার।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের তথ্য অনুযায়ী, মেদেনিপুর শহরের ওই মাজারটির নাম সুফি চাঁদ শাহ বাবার মাজার। জনশ্রুতি আছে, গত শতকের চল্লিশের দশকে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার মাড়তলা এলাকায় সুফী হাফেজ তুফানী চাঁদ নামে এক আধ্যাত্মিক সাধক খুবই জনপ্রিয়তা লাভ করেছিলেন। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ঘুরে তিনি মানব কল্যা‌‌‌ণের কথা প্রচার করতেন। কালক্রমে তিনি ‘চাঁদ শাহ বাবা’ নামে পরিচিত হন। আর তাঁর বাসস্থান পরিচিত হয় ‘চাঁদ শাহ বাবার আখড়া’ নামে।

মাড়তলা এলাকার স্থানীয়দের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী সংবাদমাধ্যমটি আরো জানায়, চাঁদ শাহ বাবার আখড়ায় সে সময় ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সব ধরনের মানুষের সমাগম হতো। সত্তরের দশকে সেই চাঁদ শাহ বাবার মৃত্যুর পর তাঁর ‘আখড়ায়’ তাঁকে কবর দেওয়া হয়। এরপরও চাঁদ শাহর মাজারে লোক-সমাগম কমেনি।

কালের বিবর্তনে সেখানে মাজারকে ঘিরে চাঁদ শাহর ভক্তদের একটি পরিমণ্ডল গড়ে ওঠে। চাঁদ শাহর জীবিতাবস্থায় তাঁর শেষ বয়সের সঙ্গী কালাচাঁদ দাস পান মাজারের খাদেমের দায়িত্ব। আর মাজার পরিচালনা কমিটির বর্তমান সভাপতি চিত্তরঞ্জন মুখোপাধ্যায়।

চিত্তরঞ্জন মুখোপাধ্যায় বলেন, দেশের মানুষের কাছে নজির তৈরি করেছে এই মাজার। যেখানে, মানুষ ধর্মের নাম করে লড়াইয়ের আখড়ায় নেমেছে, সেখানেই সব সম্প্রদায়ের মানুষকে এক ছাতার তলায় এনেছে এই মাজার

পোষ্টটি লিখেছেন: Bhinno

Bhinno News এই ব্লগে 739 টি পোষ্ট লিখেছেন .

ভিন্ন.কম একটি ভিন্ন ধর্মী অনলাইন পোর্টাল। এখানে পাবেন অনলাইন আয়, জাতীয়, ইন্টারনেট, এন্ড্রয়েড, খেলাধুলা, শিক্ষা, চাকুরী, টিপস এন্ড ট্রিকস, ফ্রি নেট, বিনোদন, বিজ্ঞান ও প্রয়ুক্তি সহ সকল ধরনের তথ্য। আপনি ও লিখতে এই ব্লগে লিখার জন্য নিবন্ধন করুন

পোস্টটি ভাল লাগলে লাইক দিন