চাদঁপুরে রং নাম্বারে প্রেম করার অপরাধে প্রেমিক -প্রেমিকার জেল

প্রথম দেখাতেই শ্রীঘরে প্রেমিক যুগল!
প্রেমিক আনোয়ার হোসেন (২৪) ও প্রেমিকা আসমা আক্তারের (১৫) পরিচয় হয় মোবাইলফোনের রং নম্বরে। তিনমাস কথোপকথনের পর তাদের প্রথম দেখা হয় মঙ্গলবার। বুধবার তারা গেলেন শ্রীঘরে!

ঘটনাটি চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার এনায়েতপুর গ্রামের। বুধবার দুপুরে হাজীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুর্শিদুল ইসলাম ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে এই প্রেমিক যুগলকে সাতদিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

সাজাপ্রাপ্ত প্রেমিক আনোয়ার হোসেন কচুয়া উপজেলার আশ্রাফপুর ইউনিয়নের নতুন বাজার এলাকার সিরাজ মিয়ার ছেলে। তিনি রাজধানীর একটি কারখানায় চাকরি করেন।

প্রেমিকা আসমা আক্তার হাজীগঞ্জ পৌর এলাকার এনায়েতপুর গ্রামের আবদুর রবের মেয়ে। সে ধোপল্লা জনতা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী।

প্রেমিক আনোয়ার হোসেন জানান, রং নম্বরে পরিচয় হওয়ার পর তিন মাস ধরে আমরা কথা বলেছিলাম। এরই সূত্র ধরে মঙ্গলবার বিকালে দেখা করতে এনায়েতপুরে আসি। এ সময় ওঁৎ পেতে রাখা একদল যুবক আমাকে ধরে মেয়ের বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে তারা মেয়েকে বিয়ে করতে বলে। পাশপাশি দুই লাখ টাকা দাবি করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মুর্শিদুল ইসলাম যুগান্তরকে জানান, ছেলের অভিভাবকদের অভিযোগের ভিত্তিতে মেয়েকে সাতদিন কারাদণ্ড দেয়া হয়। মোবাইলে কথা বলা এবং মেয়ের সঙ্গে দেখা করতে আসার অপরাধে ছেলেকে একই মেয়াদে কারাদণ্ড দেয়া হয়।

পোষ্টটি লিখেছেন: বিশ্ব বিবেক

বিশ্ব বিবেক এই ব্লগে 3317 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Loading...
পোস্টটি ভাল লাগলে লাইক দিন