এন্ড্রয়েডের নতুন ভার্সন ”N” এর ফিচারগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন

Loading...

গুগলের মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমের নতুন ডেভলপার প্রিভিউ রিলিজ হয়েছে । এন্ড্রয়েড এন কোডনেম বিশিষ্ট এই নতুন ভার্সনে থাকছে বেশ কিছু চমৎকার ফিচার। চলুন দেখে নিই সেগুলো কী কী।
১. উন্নত নোটিফিকেশন ব্যবস্থাঃ

এন্ড্রয়েড ৭ এন ভার্সনে নোটিফিকেশন ব্যবস্থায় ব্যাপক উন্নয়ন এসেছে। এতে সরাসরি নোটিফিকেশন লিস্ট থেকেই ইমেইল, মেসেজ প্রভৃতির প্রিভিউ দেখা যাবে ও রিপ্লাই দেয়া যাবে। একটি নির্দিষ্ট অ্যাপের একাধিক নোটিফিকেশন আলাদাভাবে না দেখিয়ে গ্রুপ আকারে দেখানো হবে যাতে অন্যান্য অ্যাপের নোটিফিকেশনও দ্রুত দেখে নেয়া যায়। নোটিফিকেশন কার্ডের ওপর ডানে/বামে আঙুল নিয়ে নির্দিষ্ট কোনো অ্যাপের জন্য নোটিফিকেশন কন্ট্রোল করা যাবে।

২. নাইট মুডঃ-

রাতে এন্ড্রয়েড ডিভাইস ব্যবহার করার সময় স্ক্রিনের আলো যাতে চোখে না লাগে সেজন্য স্টক এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমেই যুক্ত হল
নাইট মুড। কোনো কোনো ফোন নির্মাতা অবশ্য নিজেদের ডিভাইসের নাইট মুড ফিচার যুক্ত করে দিয়েছে আগে থেকেই, তবে এন্ড্রয়েড ৭ এন প্রিভিউ ভার্সনে এটা বিল্ট-ইন রয়েছে।

৩. স্প্লিট স্ক্রিনঃ-

এন্ড্রয়েড এন অপারেটিং সিস্টেম স্মার্ট ডিভাইস ব্যবহারকারীদের জন্য সুবিধাজনক একটি ফিচার ‘স্প্লিট স্ক্রিন’ নিয়ে আসছে যার মাধ্যমে আপনি আপনার স্মার্টফোন বা ট্যাবলেটের একই স্ক্রিনে একাধিক অ্যাপ পাশাপাশি রেখে ব্যবহার করতে পারবেন। যদিও স্যামসাং ও এলজি ইতোমধ্যেই মাল্টিউইন্ডো ফিচার এনেছে, তবে এন্ড্রয়েড এন এই সুবিধাটি বিল্ট-ইন নিয়ে আসছে।

৪. আইকন হাইড করাঃ-

এন্ড্রয়েড ফোনের স্ক্রিনের একেবারে উপরের দিকে বেশ কিছু আইকন দেখা যায়। যেমন, অ্যালার্ম ঘড়ির আইকন, ব্লুটুথ আইকন, ওয়াইফাই আইকন, ডেটা আইকন, নেটওয়ার্ক আইকন প্রভৃতি। আপনি চাইলে এখন এসব আইকন আলাদা আলাদাভাবে হাইড করে রাখতে পারবেন। এই ফিচারটি এন্ড্রয়েড ৬ মার্সম্যালো তেও ছিল, কিন্তু এন্ড্রয়েড এন ভার্সনে আরও উন্নত করা হয়েছে।

৫.ডিপিআই স্কেলিং-

স্টক এন্ড্রয়েড ফোনে এতদিন আপনি শুধু স্ক্রিনের লেখার সাইজ ছোট-বড় করতে পারতেন। কিন্তু স্ক্রিনের অন্যান্য বিষয়বস্তু যেমন আইকন, কার্ড প্রভৃতির সাইজ কমানো-বাড়ানো যেতনা। এন্ড্রয়েড এন সংস্করণে আসছে ডিপিআই স্কেলিং যা অনেকটা জুম করার মত। এর মাধ্যমে আপনি আপনার ফোনের পুরো ইন্টারফেসের সাইজ অ্যাডজাস্ট করতে পারবেন।

৬. ইমার্জেনসি ইনফরমেশনঃ-

ফোন লকড থাকা অবস্থায় ইমার্জেনসি নাম্বারে কল করা যায়। এটা পুরনো ফিচার। এন্ড্রয়েড এন ভার্সনে যুক্ত হচ্ছে নতুন আরেকটি অপশন যার নাম ‘ইমার্জেনসি ইনফরমেশন’। এতে আপনি আপনার নাম, ঠিকানা, রক্তের গ্রুপ, জন্মতারিখ প্রভৃতি লিখে রাখতে পারবেন যা ফোন লকড থাকা অবস্থায়ও দেখা যাবে। এতে করে জরুরী প্রয়োজনে আপনার ব্যাসিক তথ্য কাজে লেগে যেতে পারে।

৭. তথ্যবহুল সেটিংস মেন্যুঃ-

এন্ড্রয়েড এন এর সেটিংস মেন্যু বেশ তথ্যবহুল। সেটিংসে প্রবেশ করলেই এটি নিজ থেকেই আপনাকে সেটিংস সাজেশন দেখাবে। যেমন, আপনি যদি ফোনের ওয়ালপেপার পরিবর্তন না করে থাকেন তাহলে সেটিংস ওপেন করলেই এটি আপনাকে ওয়ালপেপার পরিবর্তন করার সাজেশন দেখাবে। এছাড়া অন্যান্য সেটিংস আইটেম ওপেন না করেই এগুলো চালু আছে কিনা তা সেটিংস আইটেমের নামের নিচে লেখা থাকবে। যেমন ফোনের ব্লুটুথ সেটিংস ওপেন না করেই আপনি দেখতে পারবেন ব্লুটুথ চালু নাকি বন্ধ। সেটিং লিস্টে নামের নিচেই এটি লেখা থাকবে।

এন্ড্রয়েড ৭ এন এর চূড়ান্ত নাম কী হবে তা এখনও নিশ্চিত করেনি গুগল

পোষ্টটি লিখেছেন: বিশ্ব বিবেক

বিশ্ব বিবেক এই ব্লগে 3297 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Loading...
পোস্টটি ভাল লাগলে লাইক দিন