৭ দিন বন্ধ থাকবে ফেসবুক, জাকারবার্গ চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানালেন

Loading...

ফেসবুক ব্লগ পোষ্টের উপর ভিক্তি করে আজকের কলামটি সাজিয়েছি, গত ফেব্রুয়ারি মাসের একুশ তারিখের উপর ভিক্তি করে আজকের এই পোস্টটি,প্রথম পর্বে আপনারা ফেব্রুয়ারি মাসের কলাম টি দেখে নিন তাহলে আপনাদের বুঝতে সুবিধা হবে.

প্রথম পর্বঃ
সীমিত পরিসরে যখন ফেসবুকের যাত্রা শুরু হয়েছিলো তখন থেকে আজ পর্যন্ত দীর্ঘ সময় জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগের এই মাধ্যমটি বন্ধ রাখার নীতিগত কোন সিদ্ধান্ত হয়নি,তবে বিভিন্ন কারনে 2008 সালে একবার একটানা সাত ঘন্টা বন্ধ ছিলো সার্ভারের সমস্যার কারনে.

এরপর 2011 সালে দুই ঘন্টার জন্য বিশ্ব ব্যাপী কেউ এই সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমটি ব্যাবহার করতে পারেনি. ফেসবুক অফিস (জেনসলার) তখন মার্ক জুকারবার্গ ঘোষণা দিয়েছিলো সামাজিক যোগাযোগের এই মাধ্যমটি আর কখনো সার্ভারের কিংবা অন্য কোন কারণে বিনা নোটিশে বন্ধ থাকবে না.সেই থেকে ফেসবুক নিরন্তন ভাবে সেবা দিয়ে যাচ্ছে সমগ্র বিশ্ববাসী কে.

সম্প্রতি ফেসবুক কে নিয়ে স্মার্ট ফোন নির্মাতা কয়েকটি প্রতিষ্ঠান গুরুতর অভিযোগ তুলেছেন,ফেসবুকের যে apps টি আছে সেখানে কিছু উচ্চমাত্রার সংকেত আছে এবং এই কারনেই স্মার্ট ফোনের চার্জ দ্রুত শেষ হয়ে যায়. এই অভিযোগের ব্যাপারে ফেসবুক কতৃপক্ষ প্রথমে কিছু না বললেও গতকালের এক কার্যবিবরনী সভায় রিস্ক অপারেশন ম্যানেজমেন্ট থেকে ডোনাল্ড ডি জেনি বিষয়টি উপস্থাপন করেন এবং এই বিষয়ে অতিদ্রুত কি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে সেটি মার্কের কাছে জানতে চান. মিটিংয়ে যাবার পথ যৌথ আলো আলোচনা শেষে পরবর্তীতে কয়েকটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয় এবং ব্লগ পোষ্টের মাধ্যমে সেটা ফেসবুক সকলকে জানিয়ে দিয়েছেন ইতোমধ্যে.

ব্লগ পোস্টের মাধ্যমে ফেসবুক জানিয়েছেন,অতি উন্নত সেবা সবার কাছে পোঁছে দেবার জন্য ফেসবুক কতৃপক্ষের চেষ্টা অব্যাহত আছে,সেই সুত্র ধরে আগামী মার্চে কয়েকটি দেশে ফেসবুকের আঞ্চলিক অফিস স্থাপন করা হবে,সার্ভার রি লোড এবং ফেসবুক apps সময়োপযোগী করার জন্য বিশ্বব্যাপী তিন দিন ফেসবুক ব্যাবহার করতে বিড়ম্বনার শিকার হতে পারেন ব্যাবহারকারীরা,মার্চের 22 থেকে 25 তারিখ পর্যন্ত বন্ধ থাকতে পারে,তবে একনাগাড়ে 72 ঘন্টা বন্ধ থাকবে কিনা সেটা মার্ক জুকারবার্গ পিতৃত্বকালীন ছুটি শেষে সিদ্ধান্ত নিবে এবং সবাইকেই পুনরায় জানিয়ে দিবেন.

দ্বিতীয় পর্বঃ প্রথম কলাম টি ফেব্রুয়ারি মাসের এটা হয়তো আপনারা বুঝতে পেরেছেন,ফেসবুক রিস্ক অপারেশন থেকে আজকে এক ব্লগ পোস্টের মাধ্যমে মার্ক জাকারবার্গের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানালেন কিন্তু মার্ক জুকারবার্গ সত্যি অতুলনীয়,মার্ক ফেসবুক ব্যাবহারকারীদের জন্য দারুণ ঘোষণা দিলেন,জাকারবার্গ জানিয়েছেন ফেসবুক সম্পূর্ণ পুরোপুরি ভাবে বন্ধ করা চলবে না তাই ফেসবুক আপস নিয়ে স্মার্টফোন নির্মাতাদের যে অভিযোগ আছে সেটি অবশ্যই গুরুতর তাই আপস উন্নত করার জন্য শুধুমাত্র এপ্রিল মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ ফেসবুক আপস বন্ধ থাকবে সমগ্র বিশ্বব্যাপী,মোবাইল ফোনের ডিফল্ট ব্রাউজার কিংবা পিসিতে অন্যান্য ব্রাউজার দিয়ে যথারীতি ফেসবুক চালানো যাবে.জাকারবার্গ আরো জানিয়েছেন ফেসবুক আপস পরিবর্তন করে এবং আরো কিছু আঞ্চলিক অফিস স্থাপন করে ফেসবুক আবারো বিশ্বব্যাপী নতুনরূপে আসবে,ফেসবুক আপস নিয়ে সাময়িক এই অসুবিধার জন্য দুখঃ প্রকাশ করেছেন.

আপু প্রতি রাতেই আমার কাপড় খুলতে হয়….

আপু ও বলে বিয়ের আগে হলেও যা বিয়েতে পরে হলেও তা এই বলে দিনের পর

দিন…আপু ছোট ছেলে দেখলে আমার মাথা ঠিক থাকেনা….

পোষ্টটি লিখেছেন: বিশ্ব বিবেক

বিশ্ব বিবেক এই ব্লগে 3304 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Loading...
পোস্টটি ভাল লাগলে লাইক দিন