হোম » লাইফস্টাইল » একইসাথে আবেগী ও বুদ্ধিমান মানুষেরা যে ৬টি কারণে বেশী সফল! –

একইসাথে আবেগী ও বুদ্ধিমান মানুষেরা যে ৬টি কারণে বেশী সফল! –

অনেকে বলে থাকে- বেশি আবেগী মানুষ জীবনে কিছু করতে পারেনা। আবেগ তাদের বোকা বানিয়ে দেয়! সত্যিই কি তাই? গবেষণা করে দেখা গিয়েছে যে, আবেগ থাকা মানেই বুদ্ধি না থাকা নয়। বরং আবেগ আর বুদ্ধিমত্তার মিশেলে গড়ে ওঠা মানুষেরই কিন্তু অনেক বেশি সম্ভাবনা রয়েছে অন্য সবাইকে হঠিয়ে দিয়ে প্রথম সারিতে চলে আসার, পৃথিবীর সফলদের খাতায় নাম লেখাবার। কী করে? আসুন জেনে নিই।
১. সুস্থ সম্পর্ক

যে মানুষগুলোর ভেতরে আবেগ প্রচুর পরিমাণে থাকে তারা অন্যে কষ্ট সহজে বুঝতে পারে। আর তাতে যদি খানিকটা বুদ্ধিমত্তা যোগ হয় তাহলে ব্যাপারটা অসাধারণ হয়ে দাঁড়ায়। কারণ, শুধু আবেগের বশে তখন আর তারা ভেঙে পড়ে না। নিজের ভেঙে পড়ার সম্ভাবনাকেও যাচাই করতে শেখে। সেই সাথে সামনের মানুষটার অতিরিক্ত রাগ কিংবা অস্বাভাবিক আচরণকেও ভুল না বুঝে নিজেকে তার জায়গায় দাড় করিয়ে ভাবতে পারে। ফলে, তাদের সম্পর্কগুলোও অনেক বেশি টেকসই হয়!
২. বর্তমানে বাঁচা

আবেগীয়ভাবে বুদ্ধিমান মানুষেরা সবসময় বর্তমানকে নিয়ে বাঁচে। অতীত আর ভবিষ্যতের কথা মাথায় উঁকি দিয়ে গেলেও বর্তমান ভালোলাগার সাথে ভেসে যেতে খুব বেশি সময় লাগেনা তাদের। ফলে, অন্যদের মতন পিছুটানের জন্যে সফলতার সিঁড়ি বাইতে সমস্যা হয়না তাদের।
৩. বাইরের প্রভাবে

নিজের সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে চারপাশের কোন কথাকেই বেদবাক্য না মনে করে নিজের মনের কথাটা শোনার চেষ্টা করে এই মানুষগুলো। ফলে তারা যেটা চায় সেটা করে এবং পরিশ্রম আর ভালোলাগার জায়গাতে স্বপ্নের ভিত গড়ে চলে যায় অনেকদূর।
৪. অনুভূতি প্রকাশ

আবেগী এবং বুদ্ধিমান ব্যাক্তি কখনোই নিজের ভেতরে কোন কষ্ট বা কথা চেপে রাখে না। ফলে সামনে যাওয়ার পথের বাঁধাগুলো, বিশেষ করে নিজের ভেতর থেকে আসা বাঁধাগুলো আর খুব একটা কাজ করেনা। কেবল নিজেদের কথাই নয়, অন্যের কথাও বোঝার চেষ্টা করে তারা। অন্যের সমস্যার সাথে নিজের সমস্যাগুলোকে মিলিয়ে নিয়ে সঠিক কোন রাস্তা খোঁজার চেষ্টা করে।
৫. নেতৃত্ব

আবেগী মানুষেরা সাধারনত খুব কম কিছুতেই কষ্ট পেলেও আবেগীয় বুদ্ধিমানেরা সেটা খুব সহজেই সামলে নেয়। নিজের কষ্টের কথা না ভেবে, সমস্যা থেকে পিছনে না ছুটে সমস্যাকে সামনে থেকে আত্মবিশ্বাসের সাথে মোকাবেলা করে। ফলে সংকটের সময়ে এই মানুষগুলোর ভেতর দিয়েই বেরিয়ে আসে অনেক মহৎ নেতৃত্ব!
৬. দোষকে চেনা

নিজেদের দোষ সম্পর্কে খুব ভালো করেই জানে এই মানুষগুলো। আর তাই কি করে সবকিছু ঠিকঠাক রেখে নিজের পছন্দমতন কাজ করা যায় সেটাও তারা বের করে নেয়। আর সেটা নিজ তাগিদেই!

পোষ্টটি লিখেছেন: Rakibul Hasan

Rakibul Hasan এই ব্লগে 7 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Close [X]