মাত্র ১২ বছরেই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির প্রস্তুতি!

Loading...

তানিশক আব্রাহাম। ছবি : টুইটার
তিনটি কমিউনিটি কলেজের ডিগ্রি আছে তার। এ ছাড়া ক্যালিফোর্নিয়ার দুটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ডিগ্রি নেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সে। পরিকল্পনা রয়েছে বায়োমেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে লেখাপড়া শেষ করে চিকিৎসক হবে এবং চিকিৎসা বিষয়ে গবেষণা করবে।
তবে আশ্চর্যের বিষয় হলো যখন সে এসব লেখাপড়া শেষ করে পেশাদার মানুষে পরিণত হবে তখন তার বয়স হবে ১৮ বছর। কারণ এই মুহূর্তে তার বয়স মাত্র ১২ বছর।

এই বিস্ময় বালকের নাম তানিশক আব্রাহাম। এই মুহূর্তে ডেভিস ইউনিভার্সিটি এবং সান্তা ক্রুজ ইউনিভার্সিটি থেকে বৃত্তি পেয়েছে। তবে এ দুটির মধ্যে কোনটিতে সে ভর্তি হবে সে বিষয়ে এখনো সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি।
গতকাল রোববার সিবিএস টেলিভিশনে প্রচারিত এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।
এক সাক্ষাৎকারে তারিশক জানায়, যখন চিকিৎসক হিসেবে ডিগ্রিপ্রাপ্ত হবে তখন তার বয়স হবে ১৮ বছর।
মাত্র ৭ বছর বয়সে কমিউনিটি কলেজে লেখাপড়া করতে শুরু করে তানিশক। গত বছর আমেরিকান রিভার কলেজ থেকে সাধারণ বিজ্ঞান, গণিত, ভৌত বিজ্ঞান এবং বিদেশি ভাষা বিষয়ে ডিগ্রি অর্জন করে সে।
যদিও ভর্তির সময় তার বয়সের কারণে শিক্ষকরা তানিশককে ক্লাসে বসতে দিতে চাননি। অনেক চেষ্টার পর একজন শিক্ষক রাজি হন। অবশ্য তাঁর শর্ত ছিল তানিশকের মা যিনি পেশায় একজন পশু চিকিৎসক তাঁকেও ক্লাসে নিতে হবে। সে সময় মাকে সাধারণ আপেক্ষিকতা এবং বিশেষ আপেক্ষিকতা সম্পর্কে বোঝায় তানিশক।
কলেজের জীববিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মারলিন মার্টিনজ বলেন, তানিশক কখনোই প্রশ্ন করতে ভয় পেত না। ক্লাস চলাকালে সবসময় বিভিন্ন প্রশ্ন করে সবাইকে ব্যস্ত রাখত সে।
স্থানীয় একটি আইকিউ ক্লাবেও যোগ দিয়েছে তানিশক। মাত্র চার বছর বয়সে ক্লাবটিতে যোগ দেয় সে। এ বিষয়ে তার বাবা বিজৌ আব্রাহাম বলেন, ছোটবেলা থেকেই যেকোনো বিষয় খুব সহজে মনে রাখতে এবং বুঝতে পারে সে। প্রথম প্রথম ছেলের প্রতিভা দেখে বেশ বিস্মিত হতেন বলেও জানান তিনি।
তবে নিজের জ্ঞান আহরণের আগ্রহ সম্পর্কে তানিশকের মতামত হলো, শিক্ষা খুব মজার জিনিস। নিত্য নতুন বিষয়ে জ্ঞান লাভ করতে ভালো লাগে তার।

পোষ্টটি লিখেছেন: বিশ্ব বিবেক

বিশ্ব বিবেক এই ব্লগে 3317 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Loading...
পোস্টটি ভাল লাগলে লাইক দিন