১০০ টাকার কথা বলতে খরচ হবে ১২২ টাকা

Loading...

মোবাইল ফোনে কথা বলার খরচ বাড়ানোর প্রস্তাব দিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তাঁর প্রস্তাব অনুযায়ী, মোবাইল ফোনের সিমের প্রতিটি সেবার সঙ্গে যোগ হবে ১৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর (মূসক), ১ শতাংশ সারচার্জ এবং ৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক। এই শুল্কটি নতুন বাজেটে বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। এর ফলে ১০০ টাকার টকটাইমের জন্য গুনতে হবে ১২১ টাকা ৭৫ পয়সা।

আজ জাতীয় সংসদে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের জন্য বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

মোবাইল ফোনের সিম বা রিম কার্ডের সেবার ওপর পাঁচ শতাংশ শুল্ক আরোপের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী। গত অর্থবছরে সিম বা রিমের মাধ্যমে সেবার ওপর শুল্কের পরিমাণ ছিল তিন শতাংশ।

এই শুল্ক আরোপের ফলে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে কথা বলা, বার্তা আদান-প্রদান, ইন্টারনেট ব্যবহারসহ সবধরনের সেবার খরচ বাড়বে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।
বেসরকারি টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠান গ্রামীণফোনের চিফ করপোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মাহমুদ হোসেন  বলেন, ‘সিম ব্যবহারের ওপর সম্পূরক শুল্ক তিন শতাংশ থেকে পাঁচ শতাংশ বৃদ্ধির ফলে আমাদের গ্রাহকদের ওপর বাড়তি আর্থিক চাপ সৃষ্টি হবে। এখন থেকে একজন গ্রাহককে ১০০ টাকার টকটাইমের জন্য ১২১ টাকা ৭৫ পয়সা ব্যয় করতে হবে।’

মাহমুদ হোসেন আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের মোবাইল ফোন শিল্পের করের বোঝা খুবই বেশি। আরো কর বসানো হলে ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে এই শিল্পের ভূমিকা ব্যাহত হবে।’

২০১৬-১৭ অর্থবছরের জন্য তিন লাখ ৪০ হাজার ৬০৫ কোটি টাকার জাতীয় বাজেটের প্রস্তাব পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

পোষ্টটি লিখেছেন: বিশ্ব বিবেক

বিশ্ব বিবেক এই ব্লগে 3317 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Loading...
পোস্টটি ভাল লাগলে লাইক দিন