ছেলে এবং মেয়ে শিশুর জন্য কিছু সুন্দর ইসলামিক নাম শেয়ার করে রাখুন

Loading...

লাবীব (لبيب-বুদ্ধিমান),

রাযীন (رزين-গাম্ভীর্যশীল),

রাইয়্যান (ريَّان-জান্নাতের দরজা বিশেষ),

মামদুহ (مَمْدُوْح-প্রশংসিত),

নাবহান (نَبْهَان- খ্যাতিমান),

নাবীল (نَبِيْل-শ্রেষ্ঠ),

নাদীম (نَدِيْم-অন্তরঙ্গ বন্ধু),

ইমাদ (عِمَاد- সুদৃঢ়স্তম্ভ),

মাকহুল (مكحول-সুরমাচোখ),

মাইমূন (مَيْمُوْن- সৌভাগ্যবান),

তামীম (تَمِيْم-দৈহিক ও চারিত্রিকভাবে পরিপূর্ণ),

হুসাম (حُسَام-ধারালো তরবারি),

(بَدْرٌ-পূর্ণিমার চাঁদ),

হাম্মাদ (حَمَّادٌ-অধিক প্রশংসাকারী),

হামদান (حَمْدَانُ-প্রশংসাকারী),

সাফওয়ান (صَفْوَانُ-স্বচ্ছ শিলা),

গানেম (غَانِمٌ-গাজী, বিজয়ী),

খাত্তাব (خَطَّابٌ-সুবক্তা),

সাবেত (ثَابِتٌ-অবিচল),

জারীর (جَرِيْرٌ- রশি),

খালাফ (خَلَفٌ- বংশধর),

জুনাদা (جُنَادَةُ- সাহায্যকারী),

ইয়াদ (إِيَادٌ-শক্তিমান),

ইয়াস (إِيَاسٌ-দান),

যুবাইর (زُبَيْرٌ- বুদ্ধিমান),

শাকের (شَاكِرٌ-কৃতজ্ঞ),

আব্দুল মুজিব (عَبْدُ الْمُجِيْبِ- উত্তরদাতার বান্দা),

আব্দুল মুমিন (عَبْدُ الْمُؤْمِنِ- নিরাপত্তাদাতার বান্দা),

কুদামা (قُدَامَةُ- অগ্রণী),

সুহাইব (صُهَيْبٌ-যার চুল কিছুটা লালচে) ইত্যাদি।

মেয়ে শিশুর কিছু সুন্দর নাম

রাসূল সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর স্ত্রীবর্গ তথা উম্মেহাতুল মুমিনীন এর নাম:

খাদিজা (خَدِيْجَةُ),

সাওদা (سَوْدَةُ),

আয়েশা (عَائِشَةُ),

হাফসা (حَفْصَةُ),

যয়নব (زَيْنَبُ),

উম্মে সালামা (أُمِّ سَلَمَة),

উম্মে হাবিবা (أُمِّ حَبِيْبَة),

জুওয়াইরিয়া (جُوَيْرِيَةُ), সাফিয়্যা (صَفِيَّةُ)।

রাসূল সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়াসাল্লাম এর কন্যাবর্গের নাম:

ফাতেমা (فَاطِمَةُ),

রোকেয়া (رُقَيَّةُ),

উম্মে কুলসুম (أُمُّ كلْثُوْم)।

আরো কিছু নেককার নারীর নাম-

সারা (سَارَة),

হাজেরা (هَاجِر),

মরিয়ম (مَرْيَم)।

মেয়েদের আরো কিছু সুন্দর নাম-

ছাফিয়্যা (صَفِيَّةُ),

খাওলা (خَوْلَةُ),

হাসনা (حَسْنَاء-সুন্দরী),

সুরাইয়া (الثُّرَيا-বিশেষ একটি নক্ষত্র),

হামিদা (حَمِيْدَةُ-প্রশংসিত),

দারদা (دَرْدَاءُ),

রামলা (رَمْلَةُ– বালিময় ভূমি),

মাশকুরা (مَشْكُوْرَةٌ-কৃতজ্ঞতাপ্রাপ্ত),

আফরা (عَفْرَاءُ-ফর্সা

পোষ্টটি লিখেছেন: বিশ্ব বিবেক

বিশ্ব বিবেক এই ব্লগে 3317 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Loading...
পোস্টটি ভাল লাগলে লাইক দিন