ইউরোপে অবৈধ প্রবাসীদের জন্য সুখবর। পর্তুগালে ইমিগ্রেশন: অবৈধদের ও বৈধ হওয়ার সুযোগ আছে পর্তুগালে

ইউরোপে অবৈধ প্রবাসীদের জন্য সুখবর। পর্তুগালে ইমিগ্রেশন: অবৈধদের ও বৈধ হওয়ার সুযোগ আছে পর্তুগালে

পর্তুগালের ইমিগ্রেশন: ইউরোপ যে সকল ভাইরা বর্তমানে অবৈধ অবস্থায় বিভিন্ন দেশে আছেন তাদের জন্য এই পোস্টটি অনেক গুরত্ব বয়ে আনবে। তবে কিছু শর্তাবলী অবশ্যই জানতে হবে যে কিসের ভিত্তিতে আপনি পর্তুগালে বৈধতা পেতে পারেন। ২০০৭ সালের জুন মাস থেকে পর্তুগাল ইমিগ্রেশন থার্ড কান্ট্রি migrant দের জন্য একটি নতুন অভিবাসন আইন চালু করেছে।

ইমিগ্রেশন আর্টিকেল নম্বর ৮৮-২ ধারা তে আপনি পর্তুগালের বৈধতা পেতে পারেন তবে শর্ত হচ্ছে আপনাকে ইউরোপ বৈধ পথে এসেছেন তার প্রমান দেখাতে হবে। তার মানে আপনি ইউরোপ ভিসা নিয়ে এসেছেন , আপনার পাসপোর্ট এ ইমিগ্রেশন কর্তিপক্ষের সীল ( যেকোন এয়ারপোর্ট এর ) আছে ইত্যাদি প্রমানাদি দেখাতে হবে। মূলকথা হচ্ছে আপনাকে অবস্যই সেনজেন ভিসা আসে এমন পাসপোর্ট থাকতে হবে। তারপর পাসপোর্ট দিয়ে আপনি পর্তুগাল ট্যাক্স কর্তিপক্ষের কাছ থেকে ট্যাক্স নম্বর নিয়ে পর্তুগালের কোন মালিকের অধীনে কাজ দেখিয়ে সামাজিক নিরাপত্তা নম্বর নিতে হবে । Social Security Number . তারপর ৬ মাস ট্যাক্স প্রদান করতে হবে কম পক্ষে, ট্যাক্স এর পরিমান বেশি হলে ও ভালো হয় তবে নিয়ম হচ্ছে কমপক্ষে ৬ টি ট্যাক্স প্রদান করতে হয়।

তার শুরু হলো অন্যান্য দরকারী কাগজ পত্র এক সাথে করা। এর মধে কথা হচ্ছে ৩-৪ টি ট্যাক্স দেয়ার পর আপনার ফাইল টি পর্তুগালের ইমিগ্রেশন পোর্টালে এন্ট্রি করাতে হবে এই ওয়েবসাইটে  http://bit.ly/9vcAGC  । ফাইল এন্ট্রি করার পরে ইমিগ্রেশন কর্তিপক্ষ আপনাকে ইন্টারভিউ এর জন্য ডাকবে। ফাইল তাদের ওয়েবসাইটে এন্ট্রি করার পর ইন্টারভিউ এর তারিখ দিতে ২-৩ মাস সময় লাগে , কারো কারো ক্ষেত্রে ১ মাসের মধ্যে ডাকে। ইমিগ্রেশন ইন্টারভিউ ডাকলে আপনাকে সমস্ত ডকুমেন্টস নিয়ে যেতে হবে। প্রশ্ন হলো আর কি কি ডকুমেন্টস দরকার ? এখন আপনাকে বলছি কি কি ডকুমেন্টস আপনাকে তাদের সামনে দেখাতে হবে।

শর্তাবলী:
১। প্রাথমিক অবস্থায় আপনার পাসপোর্ট এ সেনজেন ভিসা থাকতে হবে (মেয়াদহীন ভিসা )

২। আপনার পর্তুগিজ ট্যাক্স নাম্বার। এটাকে NIF বলা হয়ে থাকে  -Número de Indentificação Fiscal (NIF) ( যেটা আপনি পর্তুগালে যাওয়ার পর পাসপোর্ট শো করে ট্যাক্স অফিস থেকে নিতে পারবেন ।ট্যাক্স নম্বর নিতে ৮.৯০ ইউরো খরচ হবে )।

৩। পর্তুগিজ social security number যা সংক্ষেপে NISS বলা হয়ে থাকে (Número de Identificação de Segurança Social -NISS ) এটা আপনি যখন পর্তুগালে কোন মালিকের অধীনে কাজ করবেন তখন মালিক আপনার কাজের চুক্তি করলে এই নম্বর পাবেন। কিন্তু একটা জিনিস বলে রাখা দরকার পর্তুগালের সাধারণত কাজ পাওয়া ও সাথে কাজের কন্ট্রাক্ট পাওয়া একটু মুশকিল। যারা এ পর্তুগালের কাগজের আশায় যায় তারা বাঙালিদের কাজ থেকে বা আফ্রিকান পর্তুগিজদের কাজ থেকে টাকার বিনিময়ে কাজের কন্ট্রাক্ট নিয়ে থাকেন।কাজের কন্ট্রাক্ট কিনতে ২০০০-২৫০০ ইউরো পর্যন্ত নেন অনেকে। এটা আসলে বাঙালিদের একটা ব্যবসায় পরিনত হয়ে গেছে বলে লাভ নাই।

৪। কাজের কন্ট্রাক্ট বা চুক্তিনামা । কমপক্ষে ৬ মাস মেয়াদের।

৫। বাংলাদেশী পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট। দেশে থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রলায় থেকে সত্যায়িত করে আনার পর পর্তুগিজ ভাষায় রূপান্তর করে বাংলাদেশ এম্বেসী অফ লিসবন থেকে সত্যায়িত করতে হবে। (পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট কিভাবে করবেন তা নিয়ে আমাদের সাইটে একটি লেখা রয়েছে চাইলে এখানে ক্লিক করে পড়ে নিতে পারেন আপনার কাজে আসবে)।

৬। পর্তুগাল এর পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট + ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এর পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট। ২ টা সার্টিফিকেটই একই অফিস থেকে তুলতে হয়। পর্তুগালের লিসবনে Loja do cidadão নামে একটা অফিস আছে ওই অফিস থেকে ওই সার্টিফিকেট ২ টা তুলতে পারবেন। ২ তার জন্য ১২ ইউরো খরচ হবে।

৭। আপনি যদি অন্য কোন দেশে ৬ মাসের বেশি অবস্থা করেন যেমন লন্ডন, সাইপ্রাস আয়ারল্যান্ড রোমানিয়া এই সকল দেশে ছাত্র ছিলেন পরে সেনজেন ভিসা নিয়ে ইউরোপ ডুকেছেন তাদের ক্ষেত্রে যে যেই দেশে অবস্থা করেছেন ওই ওই দেশের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট লাগবে। বাধ্যতামূলক, কিংবা ইতালিয়ান ভিসা নিয়ে ইতালি এসেছেন ৬ মাসের ও বেশি সময় ইতালি কাটিয়েছেন তাদের ক্ষেত্রে ও ইতালিয়ান পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট লাগবে। অন্য কোন ভাষায় হলে সেটা কে ট্রান্সলেট করে শুধু নোটারি করতে হবে।

৮। আপনি ৬ টি ট্যাক্স প্রদান করেছেন সেটার সার্টিফিকেট . Social security office থেকে আপনি যতবার খুশি বিনা পয়সায় তুলতে পারবেন। তবে সেটার জন্য লম্বা লাইনে দাড়াতে হবে।

৯। Proof of address . আপনি যে মিউনিসিপালিটি তে থাকেন সেখান থেকে এই সার্টিফিকেট তা নিতে হবে। junta de freguesia এই অফিস থেকে নিতে হবে। আপনি যে এরিয়া তে থাকেন ওই খানকার junta de ফ্রেগুএসিয়া থেকে নিতে ১০ ইউরো খরচ পড়বে। তবে ৩ দিন আগে আবেদন করতে হবে। এক দিনে ও নিতে পারেন তবে ৩০ ইউরো চার্জ নিবে।

আপনার ফাইল ইমিগ্রেশন পোর্টালে এন্ট্রি করার পর আপনাকে একটা আই ডি ও গোপন নম্বর দেয়া হবে। ওই নম্বর ও আইডি নির্দিষ্ট জায়গায় (http://bit.ly/9vcAGC ) প্রবেশ করে আপনি আপনার ফাইল চেক করতে পারবেন। এরা যদি আপনাকে ইন্টারভিউ এর তারিখ দেয় তাহলে ও আপনি দেখতে পাবেন। সাধারণত অনলাইন তারিখ প্রদানের পর ঠিক ওই দিন ই ইমিগ্রেশন থেকে আপনাকে কল করবে। ইন্টারভিউ এর তারিখ পাওয়ার পর উপরোক্ত ডকুমেন্টস সহ টাইম মত ইমিগ্রেশন অফিস এ হাজির হতে হবে। সেই ক্ষেত্রে আপনাকে টুক টাক পর্তুগিজ ভাষা রপ্ত করতে হবে যদি তারা আপনাকে প্রথমে পর্তুগিজে প্রশ্ন করবে , না বলতে পারলে ইংলিশ এ বলে দিবেন। তাছাড়া সমস্ত কাগজপত্র ইমিগ্রেশন এ এন্ট্রি কিংবা ইন্টারভিউ তারিখ দিতে দেরী হলে আপনি একজন আডভোকেট নিয়োগ করতে পারেন। পর্তুগালের খুব সস্তায় আডভোকেট পাওয়া যায়। মাত্র ২০০ ইউরো তে সব কিছুর কন্ট্রাক্ট লয়ার কে আপনি দিতে পারেন। সে ক্ষেত্রে ইন্টারভিউ এর দিন আপনি ইংলিশ বলতে না পারলে ও আডভোকেট আপনার হেল্প করবে সব কিছুর ব্যাপারে।

আর একটা কথা বলতে চাই পরিশেষে যাদের পাসপোর্ট এ সেনজেন ভিসা আছে তারা 1000% গারান্টি ইউরোপের কোথাও কাগজ না করতে পারলেও পর্তুগালের যদি কাজের ব্যবস্থা করে ৬ মাস ট্যাক্স প্রদান করে তাহলে কাগজ আপনার হবে ই। পর্তুগালের প্রাথমিক ভাবে যেই রেসিডেন্ট পার্মিট তা দেয়া হয় সেটার মেয়াদ ১ বছর। মেয়ার বাড়লে ২ বছরের জন্য এই ভাবে ৫ বছর পর্তুগালে অবস্থানের পর আপনি পর্তুগালের নাগরিকত্ব পেতে পারেন।

তবে আপনাকে পর্তুগিজ ভাষার দক্ষতা দেখাতে হবে কমপক্ষে ইউরোপিয়ান লেভেলে B2 .পর্তুগিজ ভাষা অনেক সহজ। খুব কম সময়ে আপনি আয়ত্ত করতে পারবেন চিন্তার কোন কারণ নাই। আর সবশেষে সেই সকল ভাই দের কে অনুরোধ করব যারা অবৈধ অবস্থায় আছেন কোথাও বসে না থেকে যদি আপনার পাসপোর্ট এ সেনজেন ভিসা থাকে তাহলে পর্তুগাল থেকে পেপারস তা বানিয়ে নিয়ে আসেন। স্টুডেন্ট ভিসায় ( যাদের পাসপোর্ট এ স্টুডেন্ট ভিসা D টাইপ )যারা পর্তুগালে আগে ২০১১ সালে আবেদন করেছে তারা কাগজ পেয়েছে কিন্তু ২০১২ সাল থেকে একটু সমস্যা করতেছে পর্তুগাল ইমিগ্রেশন। তবে আশাবাদী খুব শীগ্রই এই সমস্যার সমাধান হবে।

পোষ্টটি লিখেছেন: Md Masum

Md Masum এই ব্লগে 30 টি পোষ্ট লিখেছেন .

Loading...
পোস্টটি ভাল লাগলে লাইক দিন